x
দাবা - খেলুন ও শিখুন

Chess.com

ফ্রি - গুগল প্লে-তে

ফ্রি - উইন ফোন স্টোর এ

দেখুন
দাবা খেলা শিখুন

কিভাবে দাবা খেলতে হয়: নিয়ম ও মৌলিক বিষয়

দাবা - বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা, এটা শেখা শুরু করা কখনই দেরির ব্যাপার নয়! দাবা খেলার নিয়মকানুন অনেক সহজ:

ধাপ ১: দাবার বোর্ড সেট-আপ যেভাবে করতে হয়

খেলা শুরুর সময় বোর্ডটি এমনভাবে পাতানো হয় যেন প্রত্যেক খেলোয়াড়ের নিচের ডান পাশে সাদা (বা উজ্জ্বল) রঙের ঘরটি থাকে। এরপর প্রতিবারই গুটিগুলো একইভাবে সাজানো হয়। দ্বিতীয় সারিতে প্রত্যেক ঘরে একটি করে মোট ৮টি সৈন্য বসে। সবচেয়ে নিচের সারির দুই কোনায় ২টি নৌকা, নৌকার পাশে ঘোড়া, ঘোড়ার পাশে হাতি এবং মাঝখানের ২ ঘরে রাজা ও মন্ত্রী। যে রঙের মন্ত্রী সেই রঙের ঘরে বসানো হয় (সাদা ঘরে সাদা মন্ত্রী, কালো ঘরে কালো মন্ত্রী)। বাকি ঘরটিতে রাজা বসে।

দাবার বোর্ড সেট-আপ যেভাবে করতে হয়

ধাপ ২: যেভাবে দাবার ঘুঁটি চলে

৬ রকম গুটির প্রতিটি আলাদা আলাদাভাবে চলাফেরা করে। একটি গুটি আর একটি গুটিকে ভেদ করে যেতে পারবে না (যদিও ঘোড়া অন্যান্য গুটির ওপর দিয়ে লাফিয়ে চলতে পারে) এবং স্বপক্ষের অন্য গুটির সঙ্গে একই ঘরে বসতেও পারবে না। অবশ্য কোনো একটি গুটি প্রতিপক্ষের অন্য একটি গুটিকে আত্মসাৎ করে সেই ঘরটি অধিকার করতে পারে। গুটিগুলিকে সাধারণত এমনভাবে চালনা করা হয় যাতে সেগুলি শত্রুপক্ষের গুটিকে আত্মসাৎ করতে পারে (প্রতিপক্ষের গুটিগুলি যে ঘরে রয়েছে গুটিগুলিকে সরিয়ে দিয়ে তারপর ঠিক সেই ঘরেই বসে), শত্রুপক্ষের আক্রমণের হাত থেকে নিজের অন্যান্য গুটিকে নিরাপত্তা দিতে পারে, অথবা খেলার গুরুত্বপূর্ণ ঘরগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।

দাবায় যেভাবে রাজা চালতে হয়

রাজা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গুটি, কিন্তু সবচেয়ে দুর্বলগুলোর একটা। রাজা যেকোনো দিকে এক ঘর যেতে পারবে - উপরে, নিচে, পাশাপাশি ও কোনাকুনি। রাজা কখনও নিজে চেকের মধ্যে যেতে পারবেনা (যেখানে তাকে খেয়ে ফেলা যাবে)। রাজা যখন অন্য ঘুঁটি দারা আক্রান্ত হয়, তখন তাকে "চেক" বলে।

দাবার রাজা যেভাবে চালতে হয়

দাবায় যেভাবে মন্ত্রী চালতে হয়

মন্ত্রী হল সবচেয়ে শক্তিশালী গুটি। এটা যেকোনো একদিকে সোজা চালানো যাবে - সামনে, পিছনে, পাশাপাশি বা কোনাকুনি - যতক্ষণ পর্যন্ত নিজের কোন গুটির উপর দিয়ে না যায়। আর, অন্য গুটিগুলোর মতো, মন্ত্রী যদি প্রতিপক্ষের কোনো গুটি খায় তাহলে চাল শেষ হবে। খেয়াল করুন কীভাবে সাদা মন্ত্রী কালো মন্ত্রীকে খেয়ে ফেলে এবং তারপর কালো রাজা সরতে বাধ্য হয়।

দাবার মন্ত্রী যেভাবে চালতে হয়

দাবায় যেভাবে নৌকা চালতে হয়

নৌকা যতদূর ইচ্ছা চালানো যাবে - কিন্তু শুধু সামনে, পিছনে, এবং পাশাপাশি। দুই নৌকা অনেক বেশি শক্তিশালী হয় যদি একটি আরেকটিকে সুরক্ষা দেয় এবং একসাথে কাজ করে!

দাবার নৌকা যেভাবে চালতে হয়

দাবায় যেভাবে হাতি চালতে হয়

হাতি যতদূর সম্ভব চালানো যাবে, কিন্তু শুধু কোনাকুনি। প্রত্যেকটা হাতি আলাদা রঙে থেকে শুরু করে (সাদা অথবা কালো) এবং সবসময় ঐ রঙের ঘরে-ই থাকে। দুইটা হাতি একসাথে ভালো কাজ করে, কারণ তারা একজন আরেকজনের দুর্বলতার সুরক্ষা দেয়।

দাবার হাতি যেভাবে চালতে হয়

দাবায় যেভাবে ঘোড়া চালতে হয়

ঘোড়া অন্য সব গুটিগুলোর থেকে আলাদাভাবে চলে - সোজা দুই ঘর যাওয়ার পর এক ঘর ডানে বা বামে, ঠিক ইংরেজি অক্ষর এল “L” -এর মতো। ঘোড়া হচ্ছে একমাত্র গুটি যেটি অন্য গুটির ওপর দিয়ে চলতে পারে।

দাবার ঘোড়া যেভাবে চালতে হয়

দাবায় যেভাবে সৈন্য চালতে হয়

সৈন্য একটু আলাদা কারণ সৈন্য চলে একরকম এবং খায় আরেক রকম: চলে সোজাসুজি, কিন্তু খায় কোনাকুনি। সৈন্য সামনে শুধু এক ঘর করে যেতে পারে, তবে প্রথম চালে ব্যতিক্রম হয়, প্রথম চালে সৈন্য দুই ঘরও যেতে পারে। সৈন্য তার এক ঘর সামনের কোনাকুনি ঘরে খেতে পারে। সৈন্য পিছন দিকে চলতে বা খেতে পারেনা। সৈন্যের ঠিক সামনের ঘরে যদি অন্য কোন গুটি থাকে তাহলে সৈন্য সেই গুটি টপকে সামনে যেতেও পারেনা বা সেটা খেতেও পারেনা।

দাবার সৈন্য যেভাবে চালতে হয়

ধাপ ৩: দাবার বিশেষ নিয়মগুলো আবিষ্কার করুন

দাবায় কিছু বিশেষ নিয়ম আছে যেগুলোকে শুরুতে যৌক্তিক মনে নাও হতে পারে। খেলাটিকে আরো মজার ও আকর্ষণীয় করতে এগুলো তৈরি করা হয়েছে।

দাবায় যেভাবে সৈন্যের পদোন্নতি করতে হয়

সৈন্যের একটা বিশেষ ক্ষমতা আছে এবং সেটা হল যে একটা সৈন্য যদি বোর্ডের অন্য পাশে যেতে পারে তাহলে এটি অন্য যেকোনো গুটি হতে পারবে (যাকে পদোন্নতি বলে)। সৈন্য দিয়ে যেকোনো গুটি বানানো যাবে। একটা সাধারণ ভুল ধারণা আছে যে সৈন্য শুধু সেই গুটিই হতে পারবে যে গুটি খাওয়া গেছে। ধারণাটা ঠিক নয়। সৈন্য দিয়ে সাধারণত মন্ত্রী বানানো হয়। শুধুমাত্র সৈন্য দিয়েই অন্য গুটি বানানো যাবে।

যেভাবে সৈন্যের পদোন্নতি করতে হয়

দাবায় কীভাবে "এন প্যাসান্ট" করতে হয়

সৈন্য সম্পর্কিত শেষ নিয়মটি হল "এন প্যাসান্ট", যেটি একটি ফরাসি শব্দ যার অর্থ "পাশ কাটিয়ে যাওয়ার সময়ে"। যদি সৈন্য প্রথম চালে দুই ঘর সামনে চালানো হয় এবং এর মাধ্যমে প্রতিপক্ষের সৈন্যের পাশের ঘরে বসে (অর্থাৎ দ্বিতীয় সৈন্যটির প্রথম সৈন্যটিকে খাওয়ার সুযোগ না দিয়ে পাশ কাটিয়ে পরের ঘরে যায়), তাহলে দ্বিতীয় সৈন্যটির ঐ পাশ কাটিয়ে চলে যাওয়া সৈন্যটিকে খাওয়ার সুযোগ থাকবে। প্রথম সৈন্যটি পাশ কাটিয়ে যাওয়ার সাথে সাথেই এই বিশেষ চালটি দিতে হবে, অন্যথায় সৈন্যটিকে আর খাওয়ার সুযোগ থাকবেনা। এই অদ্ভুত, কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ চালটি ভালভাবে বোঝার জন্য নিচের উদাহরণগুলোতে ক্লিক করুন।

যেভাবে এন প্যাসান্ট করতে হয়

যেভাবে দাবায় ক্যাসলিং করতে হয়

আরেকটা বিশেষ নিয়ম হলো ক্যাসলিং। এই চাল আপনাকে একসাথে দু'টি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস করার সুযোগ দেয়: আপনার রাজাকে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে আসা (আশা করা যায়) এবং নৌকাকে কোণা থেকে বের করে খেলায় আনা। কোনো খেলোয়াড়ের চালের সময় তিনি তার রাজাকে যেকোনো একদিকে দুইঘর সরাতে পারেন এবং তারপর সেই দিকের নৌকাকে বিপরীত পাশে রাজের পাশে বসিয়ে দিতে পারেন। (নিচের উদাহরণটি দেখুন)। কিন্তু ক্যাসলিং করতে হলে নিচের শর্তগুলো অবশ্যই মানতে হবে:

  • এটি অবশ্যই ঐ রাজাটির প্রথম চাল হতে হবে
  • এটা অবশ্যই ঐ নৌকার প্রথম চাল হতে হবে
  • রাজা ও নৌকার মাঝে কোন ঘুঁটি থাকতে পারবেনা
  • রাজাকে হয়তো চেক দেওয়া হয়নি অথবা চেক থেকে বের হয়ে যেতে পারে

খেয়াল করুন, যখন আপনি একদিকে ক্যাসল করবেন তখন রাজাটি বোর্ডের বেশি একপাশে চলে যায়। এটি "কিংসাইড" ক্যাসল বা শর্ট ক্যাসল নামে পরিচিত। অন্য দিকে ক্যাসল করাকে, যেদিকে মন্ত্রী বসে, "কুইনসাইড" ক্যাসল বা লং ক্যাসল বলে। যেদিকেই করুন না কেন, ক্যাসলিং করার সময় রাজা সবসময় দুই ঘর চলে।

যেভাবে দাবায় ক্যাসলিং করতে হয়

ধাপ ৪: দাবায় প্রথম কে চালে তা আবিষ্কার করুন

যিনি সাদা নিয়ে খেলছেন তিনিই সর্বদা প্রথম চাল দেবেন। তাই কোনো কাকতালীয় ঘটনা বা ভাগ্যপরীক্ষার মাধ্যমে খেলোয়াড়রা সাধারণতঃ স্থির করে নেন কে সাদা গুটি পাবেন, যেমন একটি কয়েন টস করে অথবা কোনো একজন খেলোয়াড় তার হাতের মুঠোয় কোন রঙের সৈন্য লুকিয়ে রেখেছেন সেটা দ্বিতীয়জনের অনুমানের মাধ্যমে। এরপর সাদা প্রথম চাল দেন, তারপর কালো চাল দেন, তারপর আবার সাদার চাল, কালোর চাল এবং এইভাবে খেলা শেষ পর্যন্ত গড়িয়ে চলে। প্রথমে চাল দেবার সুবাদে সাদার সামান্য কিছুটা বাড়তি সুবিধে হয়, ফলে শুরু থেকেই সে আক্রমণাত্মক খেলার সুযোগ পায়।

ধাপ ৫: কীভাবে দাবায় জিততে হয় সেই নিয়মগুলো পর্যালোচনা করুন

দাবা খেলা শেষ করার দু'টো উপায় আছে: চালমাত করে বা ড্র করে।

যেভাবে দাবায় চালমাত করতে হয়

খেলার উদ্দেশ্য হল প্রতিপক্ষের রাজাকে মাত করা। সেটি ঘটবে যখন রাজাকে চেক দেওয়া হবে এবং রাজা ঐ চেক থেকে বের হতে পারবেনা। রাজার চেক থেকে বের হওয়ার শুধুমাত্র তিনটি উপায় রয়েছে: চেকের ঘর থেকে সরে যাওয়া (যদিও সে আর ক্যাসল করতে পারবেনা!), অন্য আরেকটি গুটি দিয়ে চেক ঠেকানো, অথবা যে গুটিটি রাজাকে চেক দিচ্ছে সেটি খেয়ে নেওয়া। রাজা যদি চেকমেট এড়াতে না পারে তাহলে খেলা শেষ। নিয়ম অনুযায়ী, রাজাকে খাওয়া হয়না বা বোর্ড থেকে সরানো হয়না, সহজ কথায় খেলাটি সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

যেভাবে দাবায় চালমাত করতে হয়

যেভাবে দাবা খেলায় ড্র করতে হয়

মাঝেমাঝে দাবা খেলায় জয় পরাজয় হয় না, ড্র হয়। দাবা খেলা ড্র হওয়ার পেছনে ৫ টি কারণ আছে:

  • স্টেলমেট হয় তখন যখন একজন খেলোয়াড়ের চাল, কিন্তু তার রাজা চেক-এ না থাকার পরও তার কোন বৈধ চাল থাকেনা
  • খেলোয়াড়রা যেকোনো সময়ে ড্র-তে সম্মত হতে পারেন এবং খেলা থামিয়ে দিতে পারেন।
  • চালমাত করানোর জন্য যথেষ্ট গুটি বোর্ডে নেই (উদাহরণ: রাজা এবং হাতি বনাম শুধু রাজা)
  • একজন খেলোয়াড় হুবহু একই অবস্থান তিনবার পুনরাবৃত্তি করলে (সেটা পর পর তিনবার নাও হতে পারে) খেলায় ড্র ঘোষণা করা হয়
  • পরপর পঞ্চাশ চাল খেলা হয়েছে যেখানে কোন খেলোয়াড়ই কোন সৈন্য চালায়নি বা কোন গুটি খায়নি

ধাপ ৬: মৌলিক দাবার স্ট্রাটেজি নিয়ে পড়ুন

চারটি সহজ বিষয় আছে যেগুলো প্রত্যেক দাবা খেলোয়াড়েরই জানা উচিত:

আপনার রাজাকে সুরক্ষা

রাজাকে বোর্ডের কোনার দিকে নিন যেখানে সাধারণত বেশি নিরাপদ। ক্যাসল করতে দেরি করবেন না। যত দ্রুত সম্ভব আপনার ক্যাসল করা উচিত। মনে রাখবেন, আপনি আপনার প্রতিপক্ষকে চালমাত করার কত কাছাকাছি সেটা কোনো ব্যাপার না যদি আপনার নিজের রাজা আগেই মাত হয়ে যায়!

নিজের গুটিগুলি নিরর্থক খোয়াবেন না

অবহেলা করে গুটিগুলো খোয়াবেন না। প্রত্যেকটা গুটি গুরুত্বপূর্ণ এবং চেকমেট করার মত গুটি না থাকলে আপনি জিততে পারবেন না। প্রতিটি গুটির আপেক্ষিক মান হিসাব রাখতে অধিকাংশ দাবা খেলোয়াড়ই একটি সহজ পদ্ধতি ব্যবহার করেন। দাবার ঘুঁটিগুলোর মান কত?

  • সৈন্যের মান ১
  • ঘোড়ার মান ৩
  • একটি হাতির মান ৩
  • নৌকার মান ৫
  • একটা মন্ত্রীর মান ৯
  • রাজা হল অসীমরূপে মূল্যবান

খেলার শেষে এই পয়েন্টগুলির তেমন কোনো অর্থ নেই - আসলে এটি একটি পদ্ধতি যা খেলা চলাকালে আপনি কখন প্রতিপক্ষের গুটি আত্মসাৎ করবেন, বিনিময় করবেন কিংবা অন্য কোনো চাল দেবেন সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য ব্যবহার করতে পারেন।

দাবার মৌলিক স্ট্রাটেজি পাঠ করুন

দাবাবোর্ডের কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ করুন

আপনার সৈন্য ও অন্য গুটিগুলো দিয়ে বোর্ডের কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা উচিত। আপনি যদি কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন তাহলে আপনার গুটিগুলো চালানোর জন্য বেশি যায়গা পাবেন এবং প্রতিপক্ষের জন্য তার গুটিগুলোকে ভাল ঘরে বসানোর কাজটি কঠিন করে দিবেন। উপরের উদাহরণটিতে কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণে নিতে সাদা ভালো চাল দিয়েছে, অপরপক্ষে কালো কিছু খারাপ চাল দিয়েছে।

আপনার সকল দাবার ঘুঁটি ব্যবহার করুন

উপরের উদাহরণে সাদার সব গুটিই খেলার মধ্যে আছে! আপনার গুটিগুলো যদি প্রথম সারিতে বসানো থাকে তো সেগুলো কোনো কাজে আসবেনা। চেষ্টা করুন এবং আপনার সব গুটির উন্নয়ন করুন যাতে রাজাকে আক্রমণ করার সময় আপনি বেশি শক্তি ব্যবহার করতে পারেন। একজন ভালো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে একটি বা দু'টি গুটি দিয়ে আক্রমণ করলে কোনো কাজে আসবেনা।

ধাপ ৭: অনেক বেশি গেম খেলে অনুশীলন করুন

দাবায় উন্নতি করতে গেলে যেটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সেটা হলো আরো বেশি করে দাবা খেলা! কার সঙ্গে খেলছেন সেটা জরুরি নয়, বাড়িতে বন্ধু বা পরিজনের সঙ্গে খেলুন অথবা অনলাইনে খেলুন, কিন্তু ভালো শিখতে হলে আপনাকে প্রচুর খেলতেই হবে। আজকাল অনলাইনে দাবা খেলা খুবই সহজ! কোথায় খেলবেন জানতে হলে এখানে ক্লিক করুন

যেভাবে দাবার ভ্যারিয়ান্ট খেলতে হয়

While most people play standard chess rules, some people like to play chess with changes to the rules. These are called "chess variants". Each variant has its own rules.

যেভাবে দাবা৯৬০ খেলতে হয়

চেস৯৬০ তে স্ট্যান্ডার্ড দাবার সব নিয়মই অনুসরণ করা হয়, ব্যাতিক্রম শুধু শুরুর অবস্থানের পেছনের সারি, যেখানে গুটিগুলো ৯৬০টি সম্ভাব্য অবস্থানের যেকোনো রকমভাবে বসে। ক্যাসলিং অবিকল স্ট্যান্ডার্ড দাবার মতোই করা হয়, রাজা ও নৌকাকে তাদের স্বাভাবিক ঘরে বসিয়ে (g1 ও f1, অথবা c1 ও d1)। ৯৬০ অবিকল স্ট্যান্ডার্ড দাবার মতোই খেলা হয়, শুধু ওপেনিংয়ে ভিন্নতা এনে।

দাবা টুর্নামেন্টের নিয়মকানুন দিয়ে যেভাবে খেলতে হয়

অনেক টুর্নামেন্টে সাধারণ ও একই রকম কিছু নিয়ম অনুসরণ করা হয়। বাসায় বা অনলাইনে খেলার ক্ষেত্রে এই নিয়মগুলো সাধারণত মানা হয়না, কিন্তু আপনি সেগুলো যেকোনো উপায়ে অনুশীলন করতে চাইতে পারেন।

  • স্পর্শ-চাল- যদি কোনো খেলোয়াড় তার নিজের কোনো গুটি ধরেন, তাহলে তাকে ঐ গুটিই চালাতে হবে যদি কোনো বৈধ চাল থাকে। যদি একজন খেলোয়াড় তার প্রতিপক্ষের কোনো গুটি ধরেন তাহলে তাকে ঐ গুটি খেতে হবে। যদি কোনো খেলোয়াড় বোর্ডে সমন্বয় করার জন্য গুটি ধরতে চান, তাহলে তার ইচ্ছার কথা ঘোষণা দিয়ে নিতে হবে, সাধারণত ধরার আগে "সমন্বয়" বলে।
  • ঘড়ি ও সময়ের মানদণ্ডঅধিকাংশ টুর্নামেন্টে ঘড়ি ব্যবহার করা হয় প্রতিটি খেলার সময় বেঁধে দেওয়ার জন্য, নির্দিষ্ট চালের সময় মাপার জন্য জন্য নয়। প্রত্যেক খেলোয়াড়কে পুরো খেলা শেষ করার জন্য সমান সময় বরাদ্দ করা হয় এবং তিনি নিজের ইচ্ছেমতো তা ব্যবহার করতে পারেন। একজন খেলোয়াড় নিজের চাল দেবার পর একটি বোতাম টিপে অথবা একটি হাতলে চাপ দিয়ে প্রতিপক্ষের ঘড়ি সচল করে দেন। যদি কোনো খেলোয়াড়ের নির্দিষ্ট সময় শেষ হয়ে যায় এবং তার প্রতিপক্ষ সেদিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন, তাহলে যার সময় শেষ হয়ে গেছে তিনি পরাজিত হবেন (এক্ষেত্রে তার প্রতিপক্ষের কাছে কিস্তিমাত করার মতো যথেষ্ট গুটি থাকতে হবে, নইলে খেলাটি ড্র হবে)।

সচরাচর জিজ্ঞাসিত দাবা সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ (সজিদাপ্র)

কীভাবে আমি দাবায় ভালো করতে পারি?

নিয়ম-কানুন এবং প্রাথমিক কর্মকৌশল জানা তো মাত্র শুরু - দাবা খেলায় জানার এত কিছু আছে যে আপনি কখনোই তা এক জীবনে শেষ করতে পারবেন না! উন্নতি করার জন্য আপনার তিনটি জিনিস করা প্রয়োজন:

  1. অনেক বেশি দাবা খেলুন — শুধু খেলতে থাকুন! যত বেশি সম্ভব খেলুন। আপনি প্রতিটি খেলা থেকেই শিখবেন - জিতলেও শিখবেন, হারলেও শিখবেন।
  2. দাবার পাঠগুলো পড়ুন — আপনি যদি দ্রুত দাবায় উন্নতি করতে চান, তাহলে আপনার দাবার কিছু অনলাইন পাঠ নিতে হবে। আপনি এখানে দাবার অনলাইন পাঠ পেতে পারেন।
  3. মজা করুন — সবসময় প্রতিটি খেলা না জিতলেও নিরুৎসাহিত হবেন না। সবাই হারে - এমনকি বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরাও। আপনি যতক্ষণ পর্যন্ত খেলা থেকে আনন্দ নিতে পারবেন এবং হেরে যাওয়া খেলাগুলো থেকে শিক্ষা নেবেন, ততক্ষণ পর্যন্ত দাবা উপভোগ করবেন!

দাবায় প্রথম সেরা চাল কোনটি?

দাবায় সেরা চাল কী সে ব্যাপারে কোনো সম্মিলিত মতামত না থাকলেও, অতিসত্ত্বর কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ করাটা গুরুত্বপূর্ণ। এর ফলাফল হলো বেশিরভাগ খেলোয়াড় তাদের কেন্দ্রীয় সৈন্য (রাজা বা মন্ত্রীর সামনের সৈন্য) 1. d4 বা 1. e4 দিয়ে দুইঘরে এগিয়ে নেন। অন্য অনেক খেলোয়াড় 1. c4 বা 1. Nf3 পছন্দ করেন। অন্য চালগুলো এগুলোর মত এত ভালো না। ববি ফিশার বিশ্বাস করতেন যে রাজার সামনের সৈন্য 1. e4 -তে চালা হলো সেরা চাল।

দাবায় কোন রঙ চাল দেয়া শুরু করে?

যে খেলোয়াড় সাদা গুটি নিয়ে খেলছেন তিনি সর্বদা প্রথম চাল দেন।

সৈন্য পিছনের দিকে যেতে পারে?

সৈন্য পিছনে যেতে পারেনা। কিন্তু কোনো সৈন্য যদি বোর্ডের অন্যদিকে চলে গেলে আপনাকে অবশ্যই এটিকে অন্য ঘুঁটিতে উন্নয়ন করতে হবে (যেমন, মন্ত্রী)। এরপর এটি সেই ঘুঁটির মত চলাচল করবে এবং পিছনে যেতে পারবে।

আপনি কি দাবায় একই সময়ে একের বেশি ঘুঁটি চালতে পারেন?

যখন আপনার চাল হবে, তখন আপনি একবারে মাত্র একটি চাল দিতে পারবেন - শুধুমাত্র একটি ব্যতিক্রম ছাড়া! আপনি যখন ক্যাসল করবেন, তখন আপনি রাজা ও নৌকা একচালে একসাথে সরাতে পারবেন।

দাবার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘুঁটি কোনটি?

রাজা হলো দাবার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘুঁটি। আপনি যদি রাজা হারিয়ে ফেলেন, তাহলে আপনি গেমটি হেরে যাবেন। কিন্তু মন্ত্রী হলো সবচেয়ে শক্তিশালী দাবার ঘুঁটি।

দাবা কবে আবিষ্কৃত হয়?

দাবার জন্ম কোথায় সেটা পরিষ্কার নয়, যদিও অনেকে বিশ্বাস করেন যে এর উৎপত্তি হয়েছে দুই হাজার বছর আগে ভারতে, দাবা জাতীয় কোনো খেলা থেকে। বর্তমানে আমরা যে দাবা খেলা জানি, তার আবির্ভাব হয় ১৫ শতকে যা ইউরোপে জনপ্রিয়তা লাভ করে।

দাবা খেলার লক্ষ্য কী?

বিপরিত রঙের ৬৪ বর্গের একটি বোর্ডের দুইপাশে বসে দুইজন খেলোয়াড় দাবা খেলেন। প্রত্যেক খেলোয়াড়ের ১৬ টি করে গুটি থাকে: ১টি রাজা, ১টি মন্ত্রী, ২টি নৌকা, ২টি হাতি, ২টি ঘোড়া, ৮টি সৈন্য। খেলার লক্ষ্য হল প্রতিপক্ষের রাজাকে চেকমেট করা। চেকমেট হবে তখন যখন রাজা এমন একটা অবস্থায় আছে যেখান থেকে রাজাকে খাওয়া সম্ভব (চেক-এ আছে) এবং রাজা ঐ অবস্থা থেকে বাঁচতে পারছেনা।

দাবা খেলা শুরু করতে প্রস্তুত? Chess.com -এ বিনামূল্যে সাইন-আপ করুন এবং খেলা উপভোগ করা শুরু করুন!

দাবা খেলা শুরু করুন

দাবা খেলা শুরু করুন

অনলাইনে এখন